ঈদে বলিউড সুপারস্টার সালমানের খানের ছবি প্রেক্ষাগৃহের দখলে থাকবে না তা কি করে হয়? অথচ গত ১১ বছরে এমনটা হয়নি। ভাইজানের ছবিতে ভক্তদের মালা দেওয়া, শিসধ্বনিতে মুখরিত প্রেক্ষাগৃহ, এমনটাই যেন রেওয়াজ হয়ে গিয়েছিল।

তবে এবারের প্রেক্ষাপটটা ভিন্ন। নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপে দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। আর লকডাউনের জেরে গত দু’মাস ধরে সিনেমা হলে ঝুলছে তালা। ঠিক ছিল এই ঈদে ‘রাধে’ নিয়ে ভাইজান উপস্থিত হবেন দর্শকের দরবারে। কিন্তু সে আশায় গুড়ে বালি। একে তো সিনেমা হল বন্ধ, তা সত্ত্বেও ওটিটি প্ল্যাটফর্মে যে রিলিজ করবেন তারও জো নেই। বাকি রয়েছে পোস্ট প্রোডাকশানের বেশ খানিকটা কাজ।

সোমবার ঈদ। ঈদে  সলমনের পক্ষে কোনও চমক থাকবে না, এই ভেবে হৃদয় ভেঙে গেছে আপামর ভক্তের, ঠিক তখনই আশার আলো দেখালেন সল্লু মিয়াঁ।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন বলছে, এবারের ঈদে সালমানের ছবি মুক্তি পাচ্ছে না ঠিকই, কিন্তু ভক্তদের জন্য সোমবার নিয়ে আসবেন নতুন গান। তবে সেই গান ভাইজান নিজে গেয়েছেন নাকি ‘রাধে’ ছবির কোনও গান, তা খোলাসা করেননি তিনি। কথায় আছে, সবুরে মেওয়া ফলে।

এদিকে লকডাউনের মধ্যেই পানভেলের ফার্মহাউজে বসে ‘প্যায়ার করো না’ এবং ‘তেরে বিনা’ এ দুটি গান নিজেই গেয়ে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে নিয়ে এসেছেন সালমান। প্রকাশের পরেই দু’টি গানই সুপারহিট। এতে মন খারাপ খানিকটা কমিয়ে আপাতত তার তৃতীয় গানের অপেক্ষায় আছেন তার ভক্তরা।

বড়দিন কিংবা দীপাবলিতে নতুন ছবি মুক্তির চল থাকলেও শুধুমাত্র ঈদে ২০০৯ সাল থেকে ‘ওয়ান্টেড’ দিয়ে যাত্রা শুরু করেন। এর পর একের পর এক ‘দাবাং’, ‘বডিগার্ড’, ‘এক থা টাইগার’, ‘কিক’, ‘বজরঙ্গী ভাইজান’ এর মতো সুপারহিট ছবি ভক্তদের উপহার দিয়েছেন। এখন দেখার বিষয় ঈদে সালমানের নতুন গানটি ভক্তদের মনে কতটা সাড়া দিতে পারে।